বোরহানউদ্দিনে বৃদ্ধের দোকানঘর জোরপূর্বক দখল করে নিলো প্রভাবশালী আহসান হাবিব

প্রচ্ছদ » অপরাধ » বোরহানউদ্দিনে বৃদ্ধের দোকানঘর জোরপূর্বক দখল করে নিলো প্রভাবশালী আহসান হাবিব
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪



---

স্টাফ রিপোর্টার ॥

ভোলার বোরহানউদ্দিনে ৪০ বছরের ভোগদখলীয় নির্মিত দোকানঘরের উপর লোলপদৃষ্টি পড়েছে স্থানীয় প্রভাবশালী আহসান হাবিবের। বৃদ্ধ নেয়ামত চৌধুরীর মালিকানাধীন ৫টি দোকানঘর ক্ষমতার জোরে দখল করে নিয়েছে প্রভাবশালী আহসান হাবিব বাহিনী। এসময় বাঁধা দিতে আসলে দোকানের মালিক বৃদ্ধ নওরোজ আলম নেয়ামত চৌধুরীকে বেধড়ক মারধর করে হাবিবের নেতৃত্বে ভূমি সন্ত্রাসীরা। গত সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারী) বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডে এই ঘটনা ঘটে। দোকান ঘর দখলে নেওয়ার পর আহসান হাবিব অসহায় নেয়ামত চৌধুরীকে ভয়ভীতি হুমকি-ধামকি দিয়ে যাচ্ছে। যার ফলে বৃদ্ধ নেয়ামত চৌধুরী চরম আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। এ ব্যাপারে নেয়ামত চৌধুরী বাদী হয়ে ভোলার আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। যার নং-এমপি ৩৮/২৪। এদিকে, জোরপূর্বক দোকান ঘর দখলে নিয়ে ভূমিদস্যু আহসান হাবিব বাদী হয়ে হয়রানী করার উদ্দেশ্যে উল্টো নওরোজ আলম চৌধুরী, এডভোকেট মো: মোস্তাফিজুর রহমানসহ ৮জনকে আসামী করে একটি মিথ্যা চাঁদাবাজীর মামলা দায়ের করে। যার মামলা নং-এমপি ৪১/২৪।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা নওরোজ আলম নেয়ামত চৌধুরী তার বাসার সামনে সরকারী ভিপি সম্পত্তি লিজ নিয়ে প্রতি বছর ডিসিআর কেটে শান্তিপূর্ণভাবে দীর্ঘ ৪০ বছর যাবৎ ভোগদখল করে আসছেন। ওই জমির ২ শতাংশের মধ্যে ৫টি দোকান ঘর নির্মান করে ভাড়া দেন। নেয়ামত চৌধুরীর দীর্ঘ ৪০ বছরের ভোগদখলীয় ভিপি সম্পত্তির উপর লোলপদৃষ্টি পড়ে স্থানীয় প্রভাবশালী ভূমিদস্যু আহসান হাবিবের। নেয়ামত চৌধুরী ভোগদখলীয় ওই জমি দখল করার জন্য বিভিন্নভাবে চেষ্টা করে আহসান হাবিব। বৃদ্ধ নেয়ামত চৌধুরীকে ওই জমি ছেড়ে দেওয়ার জন্য একাধিকবার প্রস্তাব দেয় আহসান হাবিব। এতে রাজি না হলে জমির মালিক নেয়ামত চৌধুরীকে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি দেয় ভূমিদস্যু আহসান ও তার লোকজন। এতে চরম আতঙ্কিত হয়ে পড়ে অসহায় নেয়ামত চৌধুরী। গত সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারী) সকালে আহসান হাবিবের নেতৃত্বে ৩০০/৪০০ সন্ত্রাসী বাহিনী দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে নেয়ামত চৌধুরীর দোকান ঘর দখল করতে যান। এসময় নেয়ামত চৌধুরী পুলিশের খবর দিলে বোরহানউদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে এসে নেয়ামত চৌধুরীর সম্পত্তিতে প্রবেশ না করার জন্য আহসান হাবিবকে নির্দেশ দেন। এসময় আহসান হাবিব ও তার লোকজন নেয়ামত চৌধুরীকে হুমকি-ধামকি দিয়ে চলে যায়। ওই দিন রাত ১১টার দিকে আহসান হাবিব ও তার বাহিনী এসে নেয়ামত চৌধুরীর দোকানের তালা ভেঙ্গে দোকানে প্রবেশ করে সেখানে রাসায়নিক সার রেখে দোকানঘর দখল নেয়। এসময় আহসান হাবিব নিজেকে এই দোকানের মালিক বলে ঘোষনা দেয়। দোকানের মালিক বৃদ্ধ নেয়ামত চৌধুরী সেখানে আসলে হাবিব বাহিনী নেয়ামত চৌধুরীকে বেধড়ক পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। পরে লোকজন নেয়ামত চৌধুরীকে উদ্ধার করে চিকিৎসা করান। এ ব্যাপারে বোরহানউদ্দিন থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ নেয়ামত চৌধুরীর মামলা না দিলে ভূমিদস্যু আহসান হাবিব, সিতাপ, রেজাউল করিমের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করা হয়। যার মামলা নং- এমপি ৩৮/২৪। এই মামলার পর ভূমিদস্যু আহসান হাবিব দোকানের মালিক বৃদ্ধ নওরোজ আলম নেয়ামত চৌধুরীকে ভয়ভীতি ও হুমকি ধামকি প্রদর্শন করে। এতে চরম উৎকন্ঠা ও আতঙ্কে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে নেয়ামত চৌধুরী ও তার পরিবারের লোকজন।

---

এদিকে, দোকান ঘর জোরপূর্বক দখলে নিয়ে আহসান হাবিব উল্টো হয়রানী করার উদ্দেশ্যে নওরোজ আলম নেয়ামত চৌধুরী, এডভোকেট মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, ফজলুল করিম ডনী, ফরহাদ, সানি, পলাশ, রানা, সবুজের বিরুদ্ধে মিথ্যা চাঁদাবাজী মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং- এমপি ৪১/২৪।

দোকানের মালিক ভুক্তভোগী নওরোজ আলম নেয়ামত চৌধুরী বলেন, বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডে আমার বাসার সামনে সরকারি ভিপি সম্পত্তির ডিসিআর কাটার মাধ্যমে দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে আমি ভোগদখল করে আসছি। এখন পর্যন্ত আমার ডিসিআর কাটা রয়েছে। আমি সেই ভিপি সম্পত্তির উপর দোকান ঘর নির্মান করে ভাড়া দিয়ে আসছি। হঠাৎ করে আমার এই দোকানঘরের উপর লোলপদৃষ্টি পরে স্থানীয় প্রভাবশালী আহসান হাবিবের। সে দীর্ঘদিন ধরে আমার দোকানঘর দখলের পায়তারা করে আসছে এবং আমাকে দোকান ছেড়ে দিতে ভয়ভীতি ও হুমকি দিচ্ছে। গত ১৯ ফেব্রুয়ারী ভূমিদস্যু আহসান হাবিব ও তার ৩০০/৪০০জনের একটি সন্ত্রাসী বাহিনী দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে রাতের আধারে আমার দোকানঘর দখল করে নিয়েছে। দোকান দখলে নিয়ে এগুলোর মালিক সে বলে ঘোষণা দিচ্ছে এবং আমাকে হুমকি ও ভয় দেখাচ্ছে। আমি এ ব্যাপারে বাদী হয়ে আদালতে মামলা করেছি। আমি যাতে আমার ৪০ বছরের ভোগদখলীয় জমি শান্তিপূর্ণভাবে ভোগদখল করতে পারি সে জন্য প্রশাসনের সর্বাত্মক সহযোগীতা কামনা করছি।

এডভোকেট মো: মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডে অসহায় নওরোজ আলম নেয়ামত চৌধুরী ভিপি লিজ নিয়ে ডিসিআর কেটে দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে ভোগদখলে আছেন। ওই জমিতে দোকানঘর নির্মান করে ভাড়া দিয়ে কোন রকম পরিবার পরিজন নিয়ে সংসার চলে নেয়ামত চৌধুরী। কিন্তু স্থানীয় প্রভাবশালী আহসান হাবিবের লোলপদৃষ্টি পরে নেয়ামত চৌধুরীর জমির উপর। সে ওই জমি দখলের জন্য বিভিন্নভাবে চেষ্টা করে ও দোকানঘর ছেড়ে দেয়ার জন্য নেয়ামত চৌধুরীকে হুমকি দেয়। গত ১৯ ফেব্রুয়ারী প্রায় ৩ থেকে ৪শ’ সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে আহসান হাবিব জোরপূর্বক নেয়ামত চৌধুরীর দোকান ঘর দখল করে নিয়ে যায় এবং নেয়ামত চৌধুরীকে রক্তাক্ত মারধর করে। নেয়ামত চৌধুরী প্রতি বছর লিজের টাকা পরিশোধ করে ডিসিআর কেটে জমি ভোগদখলে আছে। অসহায় নেয়ামত চৌধুরীর জমি ভূমিদস্যুদের হাত থেকে দখল মুক্ত করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত আহসান হাবিব বলেন, এই জমি তাদের কাছ থেকে আমি ক্রয় করেছি। বাকি যেটুকু ভিপি সম্পত্তি ছিলো সেটুকু সরকারের কাছ থেকে ডিসিআর কেটে নিয়েছি।

এ ব্যাপারে বোরহানউদ্দিন থানার ওসির বক্তব্য নিতে চাইলে তিনি বক্তব্য দিতে অপরাগতা প্রকাশ করেন।

বাংলাদেশ সময়: ২:৪৬:০২   ১০৫ বার পঠিত  




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

অপরাধ’র আরও খবর


ঘুষ ছাড়া কাজ হয়না ভোলার বিএমইটি অফিসে॥ প্রতিদিন ঘুষের আয় প্রায় অর্ধলক্ষ টাকা!!
ভোলায় ফিল্মি স্টাইলা অপহরণ ॥ কতিপর উদ্ধার
ফুঁক দিয়েই সব সমস্যার সমাধান করেন ফরিদ!
প্রেমিকের সঙ্গে ‘বিয়ে’ রফাদফায় এসে কিশোর গ্যাংয়ের হাতে ধরা তরুণী, অতঃপর…
ভোলায় যৌতুকের মামলা দেওয়ায় স্ত্রীকে তালাক দিলো স্বামী ॥ শিশু সন্তান নিয়ে দুশ্চিতায় হাফছা
ভোলায় যুবকের রহস্যজনক ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
টাকা নিয়ে প্রতারণা, সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার
মনপুরায় খাল থেকে অজ্ঞাতনামা এক বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার
মনপুরায় ব্যবসায়ীর দোকান থেকে লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি
ভোলায় সরকারী বন্ধের দিনে প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার গাড়ি দুর্ঘটনার শিকার ॥ চলছে বিভাগীয় তদন্ত



আর্কাইভ