তীব্র গরম আর লোডশেডিংয়ে অতিষ্ট ভোলাবাসী, ৩ মাস ধরে বন্ধ বিদ্যুৎ প্লান্ট

প্রচ্ছদ » জেলা » তীব্র গরম আর লোডশেডিংয়ে অতিষ্ট ভোলাবাসী, ৩ মাস ধরে বন্ধ বিদ্যুৎ প্লান্ট
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪



---

ছোটন সাহা ॥

একদিকে গরম আর অন্যদিকে বিদ্যুতের ভয়াবহ লোডশেডিংয়ে অতিষ্ঠ ভোলাবাসী। দিনে ও রাতে বিদ্যুতের এমন অবস্থায় বিপর্যস্ত জনজীবন। তবে সবচেয়ে বেশী সমস্যায় পড়ছেন ক্ষুদ্র ও মাঝারি কারখানার মালিকরা।

এদিকে যান্ত্রিক ত্রুটির কারনে ৩ মাস ধরে সাড়ে ৩৪ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন রেন্টাল পাওয়ার প্লান্ট মেশিনটি বন্ধ থাকায় এ অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে জানিয়েছে বিদ্যুৎ বিভাগ। তবে রেন্টাল কর্তৃপক্ষ বলছে বিষয়টির সমাধানের ব্যাপারে প্রচেষ্টে চলছে।

জানা গেছে, গত এক সপ্তাহের বেশী সময় ধরে কখনও ৩৮ ডিগ্রী কখনও বা ৩৭ ডিগ্রী তাপমাত্রা উঠা নামা করায় প্রচন্ড তাপদাহ বিরাজ করছে উপকূলীয় জেলায় ভোলায়। এতে জনজীবনে নেমে এসেছে দুর্ভোগ। এরমধ্যে আবার বিদ্যুতের লোডশেডিংয় ভোগান্তির মাত্রা যেন আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন ছোট বড় ব্যবসায়ীরা। শুধু তাই নয়, চরম দুর্ভোগে পড়েছে শ্রমজীবি মানুষগুলো। বিপাকে পড়েছে ক্ষুদ্র বডবনায়ীরাও।

ভোলার ইলিশা বাসস্ট্যান্ড এলাকার ওয়ার্কশপ ব্যবসায়ী জহির ও মিজান বলেন, আমাদের বব্যবসা বিদ্যুতের ওপর নির্ভরশীল। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে অস্বাভাবিক লোডশেডিং। যার ফলে ব্যবসা টিকিয়ে রাখা দুস্কর হয়ে পড়েছে।

ক্যাবল অপারেটর কৃষ্ণ দাস বলেন, একদিকে গরম আর অন্যদিকে লোডশোডিংয়ে অতিষ্ঠ মানুষ।

গৃহিনী লুৎফা বেগম বলেন, বিদ্যুৎ এতো বেশী লোডশেডিং হচ্ছে, বাসার ফ্রিজ চলছে না, রাতে আরো বেশী গরম পরে তখন ভোগান্তির যেন শেষ নেই।

ভোলায় বিদ্যুৎ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ফর ডিস্টিবিউশন (ওজোপাডিকো) কোম্পানি লিঃ ও পল্লী বিদ্যুতের সমিতির আওতায় পুরো জেলায় ৫ লাখের অধিক গ্রাহক রয়েছে। যারা জেলার সাত উপজেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ করছেন। কিন্তু যান্ত্রিক ত্রুটির কারনে সাড়ে ৩৪ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ প্লান্ট টানা ৩ মাস ধরে বিকল থাকায় বিদ্যুতের সংকট তীব্র আকার ধারন করেছে। চাহিদার বিপরীতে সরবরাহ দিতে না পারায় ভোগান্তিতে গ্রাহকরা।

তবে চাহিদার বিপরীতে সরবরাহ না থাকায় বাধ্য হয়েই লোডশেডিং করতে হচ্ছে বলে জানান ওজোপাডিকোর নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ ইউনুস। তিনি বলেন, ভোলা সদর, বোরহানউদ্দিন ও চরফ্যাশন উপজেলায় ৮০ হাজার গ্রাহকের চাহিদা ৩০ মেগাওয়াট।

কিন্তু জাতীয় গ্রীড থেকে আমরা পাচ্ছি ২২ মেগাওয়াট। যে কারণে লোডশেডিং করতে হচ্ছে বাধ্য হচ্ছি। এ জেলায় যদি গ্রীড সাবষ্টেশন করা যায় তাহলে এমন সমস্যা থাকবে না।

পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি জানিয়েছে , ৪লাখ ৩৮ হাজার গ্রাহক থাকলেও এ মুহুর্তে তাদের তেমন লোডশেডিং নেই। জাতীয় গ্রীড থেকে সরবরাহ হচ্ছে বিদ্যুৎ।

ভোলার ৩৪.৫ মেগাওয়াট ক্ষমা স¤পন্ন বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ব্যবস্থাপক মোঃ হাফিজুর রহমান বলেন, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে মেশিন সমস্যা হচ্ছে। আশা করি আগামী ৬ মাসের মধ্যে এ সমস্যার সমাধান হবে।

এদিকে দ্বীপজেলা গ্রীড সাব স্টেশন স্থাপন হলে বিদ্যুতের এ সমস্যা অনেকাংশে কমে যাবে বলে মনে করছে বিদ্যুৎ বিভাগ। বিদ্যুৎ সমস্যার দ্রুত সমাধান চান ভোলাবাসী।

বাংলাদেশ সময়: ২:২৪:৫৪   ২৪৭ বার পঠিত  




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

জেলা’র আরও খবর


ভোলায় ভোটারদের নানান প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রচার- প্রচারনায় ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা
ভোলার উন্নয়ন ও অগ্রগতির বিবেচনায় নিয়ে মটরসাইকেল ও উড়োজাহাজে ভোট দিবেন
এমন নির্বাচন হবে যা ভোলাবাসী কখনো ভুলবে না: ভোলায় ইসি হাবিব
ভোলায় শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত
ভোলায় মেঘনা নদী থেকে পাঙ্গাস মাছের অবৈধ পোনা শিকারের ৫টি চাই ধ্বংস
২১ তারিখ মটরসাইকেল ও উড়োজাহাজে ভোট দিবেন: চেয়ারম্যান প্রার্থী ইউনুছ
তজুমদ্দিনে ঢাকাগামী লঞ্চ থেকে ৩শ কেজি পাঙ্গাসের পোনা আটক
ভোলায় ইমাম মুয়াজ্জিনদের সাথে মতবিনিময় সভায় দোয়া চেয়েছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী মোশারেফ হোসেন
ভোলায় সাংবাদিকদের নিয়ে এলজিইডির জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত
লালমোহন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: প্রচারনাকালে প্রার্থীর ওপর হামলা, মোটরসাইকেল ভাঙচুর, আহত-৪



আর্কাইভ