ভোলার বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে পর্যটকদের ঢল

প্রচ্ছদ » জেলা » ভোলার বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে পর্যটকদের ঢল
সোমবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৩



ছোটন সাহা ॥

পর্যটকদের ঢল নেমেছে ভোলার বিনোদন কেন্দ্রগুলোয়। ঈদের ছুটিতে হাজার হাজার ভ্রমণপিপাসু মানুষ ছুটে আসছেন একটু বিনোদনের আশায়। দ্বীপজেলায় উল্লেখযোগ্য পর্যটন কেন্দ্র না থাকলেও মেঘনার পাড়ে প্রশান্তির আশায় ভিড় জমাচ্ছেন তারা।

ভোলার তুলাতলী ও ইলিশ বাড়িসহ কয়েকটি পর্যটন কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, কেউ ছবি তুলছেন, কেউ নৌকায় ঘুরছেন আবার কেউবা প্রিয়জনকে নিয়ে বাঁধের ওপর নির্মল বাতাসে হেঁটে বেড়াচ্ছেন।

নানা বয়স ও শ্রেণি-পেশার মানুষ একটু প্রশান্তির আশায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন ইলিশ বাড়ি, তুলাতলী, মেঘনা রিসোর্ট, বাঘমারা ব্রিজ ও ইকোপার্কসহ দর্শনীয় স্থানে। প্রকৃতির নির্মল বাতাস, নদীর ঢেউ আর সবুজে ঘেরা সৌন্দর্য উপভোগ করে মুগ্ধ তারা।

---

মহরিন ও সানজিদা ও মৌ বলেন, ঈদের ছুটিতে ঘুরতে এসেছি। খুব ভালো লাগছে। এদিকে বড়দের মতো ছোট ছোট শিশু-কিশোররাও বাধ ভাঙা উচ্ছ্বাসে মেতে উঠেছে।

এ গরমে যান্ত্রিক জীবনে একটু প্রশান্তি পেতে সবাই যেন ছুটছেন মেঘনা পাড়ে। আর তাই বিপুল সংখ্যক ভ্রমণপিপাসু মানুষের ঢল নেমেছে এসব স্থানে। এদিকে পর্যটকদের নিরাপত্তায় মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ।

ভোলা সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মামুনুর রশিদ বলেন, পর্যটকদের নিরাপত্তায় আমরা নিয়োজিত রয়েছি। সব কয়টি পর্যটন কেন্দ্রে ভিড় রয়েছে ও সেখানে পুলিশ রয়েছে।

ঈদের ছুটি যতদিন, ততদিন পর্যটকদের এমন ঢল থাকবে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

 

বাংলাদেশ সময়: ২২:১০:৫৩   ২৬৬ বার পঠিত  




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

জেলা’র আরও খবর


রেমালের তান্ডবে লণ্ডভন্ড ভোলা, নিহত ৫ ॥ বিধ্বস্ত সাড়ে ৭ হাজার বসতঘর
ভোলায় জোয়ার-জলোচ্ছ্বাসে ১৩ কিলোমিটার বাঁধের ক্ষতি
চরফ্যাশনের উপকূল বিধ্বস্ত হাজারো ঘরবাড়ি, ডুবেছে ফসল ও মাছের ঘের
ঘূর্ণিঝড় রেমালের তান্ডভে লন্ডভন্ড মনপুরা উপকূল
ভোলায় ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাব কাটেনি অধিকাংশ এলাকা বিদ্যুৎহীন
লালমোহনে ভেসে গেছে কোটি টাকার মাছ
ঘূর্ণিঝড় রিমাল: ভোলায় ২ হাজার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত, নিহত ৩
ঘূর্ণিঝড় রেমাল: ভোলার উপকূলের অর্ধলাখ মানুষ আশ্রয়কেন্দ্রে, নি¤œাঞ্চল প্লাবিত
মনপুরায় নি¤œাঞ্চল জোয়ারে প্লাবিত, আশ্রয়কেন্দ্রে দলবেঁধে ছুটছে মানুষ
চরফ্যাশনে ঝড়ো বাতাসের তীব্রতায় নি¤œাঞ্চল প্লাবিত



আর্কাইভ