মনপুরায় ভয়ে স্কুলে যাচ্ছে না সেই ছাত্রী, এখন আটক হয়নি দুই ইভটিজার

প্রচ্ছদ » অপরাধ » মনপুরায় ভয়ে স্কুলে যাচ্ছে না সেই ছাত্রী, এখন আটক হয়নি দুই ইভটিজার
মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ ২০২৩



মনপুরা প্রতিনিধি ॥
ভোলার মনপুরায় দুই ইভটিজারের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিয়েও কোন প্রতিকার মেলেনি নানা বাড়িতে থেকে পড়ালেখা চালিয়ে যাওয়া উত্তর সাকুচিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর সেই ছাত্রীর। বরং থানায় অভিযোগ দিয়ে উল্টো বিপদে পড়েছে নানার পরিবার। অভিযোগ তুলে নিতে চাপ আসছে বিভিন্ন মহল থেকে এমন কথা জানান সেই ছাত্রীর নানা আবদুল হক মেস্তুরী।
এদিকে ইভটিজারদের একের পর এক হুমকিতে মঙ্গলবার স্কুলে আসেনি সেই ছাত্রী। স্কুলের শিক্ষক, ম্যানেজিং কমিটি ও পুলিশ অভয় দিলেও ইভটিজারদের ভয়ে নানা সেই ছাত্রীকে তজুমুদ্দিনে মেয়ের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়।

মঙ্গলবার সকাল থেকে দুই ইভটিজার জিকু ও ইব্রাহীমকে ধরতে একাধিক অভিযান পরিচালনা করলেও আটক করতে পারেনি পুলিশ। তবে এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত দুই ইভটিজারকে পুলিশ আটক করতে না পারায় ক্ষুব্ধ মনোভাব প্রকাশ করেন সচেতন মহল। তারা মনে করেন এই ঘটনায় পুলিশ দুই ইভটিজারকে আটক করে দৃষ্টান্ত শাস্তির ব্যবস্থা না করলে দ্বীপের নারী শিক্ষা প্রসারে ব্যাহত হবে।
অভিযুক্ত দুই ইভটিজার যুবক হলেন, উপজেলার উত্তর সাকুচিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মোঃ গিয়াস উদ্দিনের ছেলে মোঃ জিকু ও একই ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মোশারেফ সর্দারের ছেলে মোঃ ইব্রাহীম।
সেই ছাত্রীর নানা ও ঘটনা সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিন স্কুল যাওয়ার পথে জিকু ও ইব্রাহীম গতিরোধ করে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। বিষয়টি সেই ছাত্রী নানাকে অবহিত করে। পরে নানা বিষয়টি গত শনিবার স্কুল কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে। স্কুল কর্তৃপক্ষকে অবহিত করায় শনিবার সন্ধ্যায় ওই দুই ইভটিজার সেই ছাত্রীর নানা বাড়িতে গিয়ে তুলে নিয়ে গিয়ে বিয়ে করবে বলে হুমকি দেয়। পরে স্কুলের প্রধান শিক্ষককে অবহিত করলে সোমবার প্রধান শিক্ষক সেই ছাত্রীর নানাকে সঙ্গে নিয়ে থানায় দুই ইভটিজারের বিরুদ্ধে অভিযোগ দেয়। একপর্যায়ে স্কুল শিক্ষক, ম্যানেজিং কমিটি ও পুলিশ অভয় দিলেও ইভটিজারদের হুমকিতে সেই ছাত্রীকে তজমুদ্দিনে মেয়ের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় নানা।
এই ব্যাপারে মনপুরা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি হাজিরহাট মডেল সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আলমগীর হোসেন জানান, দুই ইভটিজারকে আটক করে দ্রুত আইনি ব্যবস্থা নিবে পুলিশ এমন প্রকাশ করেন তিনি। তান না হলে এই দ্বীপে নারী শিক্ষা প্রসার ব্যাহত হবে। একইভাবে বলেন মনপুরা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি হাজিরহাট মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনোয়ারা বেগম।
এই ব্যাপারে উত্তর সাকুচিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদুর রহমান জানান, শিক্ষক, ম্যানেজিং কমিটি পরিবারকে অভয় দিলেও আজও স্কুলে আসেনি সেই ছাত্রী। ভয়ে অন্যত্র পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।
এই ব্যাপারে মনপুরা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইদ আহমেদ জানান, পুলিশ দুই ইভটিজারকে আটক করতে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২৩:১৪:৩৬   ২২২ বার পঠিত  




পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)

অপরাধ’র আরও খবর


ঘুষ ছাড়া কাজ হয়না ভোলার বিএমইটি অফিসে॥ প্রতিদিন ঘুষের আয় প্রায় অর্ধলক্ষ টাকা!!
ভোলায় ফিল্মি স্টাইলা অপহরণ ॥ কতিপর উদ্ধার
ফুঁক দিয়েই সব সমস্যার সমাধান করেন ফরিদ!
প্রেমিকের সঙ্গে ‘বিয়ে’ রফাদফায় এসে কিশোর গ্যাংয়ের হাতে ধরা তরুণী, অতঃপর…
ভোলায় যৌতুকের মামলা দেওয়ায় স্ত্রীকে তালাক দিলো স্বামী ॥ শিশু সন্তান নিয়ে দুশ্চিতায় হাফছা
ভোলায় যুবকের রহস্যজনক ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
টাকা নিয়ে প্রতারণা, সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার
মনপুরায় খাল থেকে অজ্ঞাতনামা এক বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার
মনপুরায় ব্যবসায়ীর দোকান থেকে লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি
ভোলায় সরকারী বন্ধের দিনে প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার গাড়ি দুর্ঘটনার শিকার ॥ চলছে বিভাগীয় তদন্ত



আর্কাইভ