বিশেষ সাক্ষাৎকারে নবাগত পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম “ভোলার প্রধান সমস্যা মাদক ও ট্রাফিকসহ বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সহযোগিতা করুন”

---

॥ মুহাম্মদ শওকাত হোসেন ॥

গত ২৪ অক্টোবর ভোলা জেলার পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদান করেছেন মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম। ইতোমধ্যেই তিনি পুলিশের নিয়োগ পরীক্ষা, ভোলার বিভিন্ন উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন, মাদক বিরোধী অভিযানসহ বিভিন্ন কার্যক্রমে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণে সক্ষম হয়েছেন। গত মঙ্গলবার বিকেলে দৈনিক আজকের ভোলার সাথে এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ থেকে গত তিন সপ্তাহের অভিজ্ঞতা, প্রতিক্রিয়া ও ভবিষ্যৎ চিন্তা ভাবনার কথাগুলো প্রকাশ করেন।
প্রশ্ন ছিল- ভোলায় এসে দায়িত্ব গ্রহণ করার পর থেকে এ ক’দিনের অভিজ্ঞতার কথা বলুন? তিনি সহাস্যে উত্তর করলেন, ভালো, খুব ভালো। ভোলায় না আসলে বাহিরে থেকে জানতেই পারতাম না ভোলার সামগ্রিক পরিস্থিতি এবং ভোলার মানুষের আন্তরিকতা ও আতিথেয়তার কথা। তিনি বলেন, বাইরে থেকে আমরা ভোলা স¤পর্কে যা চিন্তা করি ভোলায় আসলে মনে হয় না যে আমরা সেরকম কোন জায়গায় এসেছি। তিনি ভোলার সামগ্রিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সামাজিক রাজনৈতিক অবস্থা এবং এখানকার বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষের আন্তরিকতার ভূয়সী প্রশংসা করেন। দ্বিতীয় প্রশ্ন ছিল, ভোলা জেলার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রধান হিসেবে আপনার সামনে কোন কোন বিষয় বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে হয়?
এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, পুলিশ কে জনগণের পুলিশ হতে হবে, আর জনগণের জন্যই কাজ
করতে হবে। সে লক্ষ্যকে সামনে রেখে ইতোমধ্যেই বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজনের সাথে এবং আমার সহকর্মীদের সাথে আলাপ করে ভোলার মূল সমস্যা গুলো আমি বাছাই করার চেষ্টা করেছি। আমার মনে হয়েছে ভোলার প্রধান দুটি সমস্যা হচ্ছে মাদক এবং ভোলা শহরের ‘যানজট’। এছাড়া ভোলায় বিভিন্ন অপরাধ যেমন ধর্ষণ, আত্মহত্যা, নারী নির্যাতন, জলদস্যুতাসহ বিভিন্ন ধরনের অপরাধ সংগঠিত হচ্ছে।
আলাপচারিতায় পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম জানান, তিনি ইতোমধ্যেই ভোলার সাংবাদিকবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধাসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। তার সহকর্মীদের সঙ্গে একাধিক বৈঠকে মিলিত হয়েও তিনি ভোলার বিভিন্ন অপরাধ এবং পুলিশের কার্যক্রম ইত্যাদি সম্পর্কে জেনেছেন। এসব বিষয়ে পুরোপুরি হোমওয়ার্ক করে তিনি তার কার্যক্রম শুরু করেছেন।
মাদক নিয়ন্ত্রণ এর ব্যাপারে তিনি বলেন, এটি সারাদেশের এবং শুধু বাংলাদেশ নয় একটি আন্তর্জাতিক সমস্যা। তার পরেও ভোলার মত বিচ্ছিন্ন একটি দ্বীপে মাদকের সরবরাহ এবং এই সরবরাহের সাথে যারা জড়িত রয়েছেন তাদেরকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারলে এটা নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব। তিনি বলেন, ভোলা-চরফ্যাশনসহ বিভিন্ন জায়গায় ইতিমধ্যেই প্রচুর পরিমাণে মাদকসহ বেশ কয়েকজন মাদক ব্যবসায়ী ও সরবরাহকারীকে আটক করা হয়েছে। এদেরকে ছাড়িয়ে নেয়ার ব্যাপারে কোন মহল থেকে টেলিফোন না আসায় তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি ভোলার সিভিল সোসাইটি, রাজনীতিবিদ এবং সর্বস্তরের মানুষের  সহযোগিতার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন পুলিশ মাদকের যেসব আগমন পথ গুলো রয়েছে যেমন ইলিশা, ভেলুমিয়া, হাকিমুদ্দিনসহ প্রতিটি পথে সতর্কভাবে কাজ করছে।
তিনি আরও জানান পুলিশের মধ্যে কোন মাদকসেবী কিংবা মাদক সরবরাহে সহযোগিতাকারী আছে কিনা সেটাও নিবিড় ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। যদি এ ধরনের কাউকে পাওয়া যায় তাদের ব্যাপারেও প্রয়োজন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
ভোলা শহরের যানজট সম্পর্কে তিনি বলেন, ভোলা সদরসহ বিভিন্ন রাস্তায় প্রচুর যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। যা নিরসন করা একান্তই প্রয়োজন। কিন্তু সে ক্ষেত্রে কিছু বাস্তব সমস্যা রয়েছে। কারণ রাস্তায় যেসব যানবাহন বের হয় তাদের লাইসেন্স রুট পারমিট দেয়া, চালকদের প্রশিক্ষণ, পার্কিং ব্যবস্থা মূলত ভিন্ন ভিন্ন সংস্থার দায়িত্বে। পুলিশের দায়িত্ব হচ্ছে ট্রাফিক ব্যবস্থা কে নিয়ন্ত্রণ করা ও ট্রাফিক আইন মেনে চলা  নিশ্চিত করা। বর্তমানে শত-সহ¯্র অবৈধ যানবাহন চলাচল করছে, চালকদের কোনো প্রশিক্ষণ নেই। ফলে প্রতিনিয়ত সড়ক দুর্ঘটনা ঘটছে। তাই যানজট সমস্যা নিরসনে প্রয়োজন সমন্বিত উদ্যোগ। তিনি এসব ক্ষেত্রে যেসব সমস্যা বিদ্যমান রয়েছে তা দূরীকরণে আন্তরিকভাবে প্রচেষ্টা চালাবেন বলে জানান।
দৈনিক আজকের ভোলার মাধ্যমে তিনি ভোলাবাসীর প্রতি তার শুভেচ্ছা ও সদিচ্ছা প্রকাশ করে বলেছেন তিনি পুলিশ কে “জনগণের পুলিশ” হিসেবে কাজ করার ব্যাপারে সর্বস্তরের জনগণের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন।
প্রকাশ: মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম ভোলা জেলার ২৮ তম পুলিশ অফিসার হিসেবে গত ২৪ অক্টোবর ২০২১ তারিখে যোগদান করেন। এর পূর্বে তিনি ডিএমপি ঢাকার উত্তরা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। মোঃ সাইফুল ইসলাম ১৯৭৭ সালের ৮ সেপ্টেম্বর ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকার নটরডেম কলেজ পরে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ময়মনসিংহ থেকে ক্রিমিনোলজি বিষয়ে এমএসএস ডিগ্রি অর্জন করেন। এছাড়াও এফবিআই ন্যাশনাল একাডেমী ইউএসএ এর একজন র্গ্যাজুয়েট। তিনি ২৫তম বিসিএস উত্তীর্ণ হয় ২০০৬ সালে বাংলাদেশ পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদান করেন। তিনি গোয়েন্দা বিভাগ, এপিবিএন, কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি দেশে-বিদেশে বহু প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছেন। পেশাগত ও ব্যক্তিগত প্রয়োজনে ভারত, সিঙ্গাপুর, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, কম্বোডিয়া, থাইল্যান্ড, জাপানসহ বিভিন্ন দেশ ভ্রমণ করেছেন। তার কর্মের স্বীকৃতি হিসেবে তিনি বাংলাদেশ পুলিশের মেডেল বিপিএম ও রাষ্ট্রপতি পুলিশ মেডেল পিপিএম (সেবা) এবং তিনবার আইজিপি এক্সেম্পøারি গুড সার্ভিস সম্মাননা প্রাপ্ত হয়েছেন।
ব্যক্তিগত জীবনে তার স্ত্রী একজন গৃহিণী, দুই কন্যা ঢাকার ভিকারুন্নেসা নুন স্কুল এন্ড কলেজে অধ্যায়নরত।


এ বিভাগের আরো খবর...
চরফ্যাশনে ২১ জেলে নিয়ে সাগরে ট্রলার ডুবি ১জন উদ্ধার চরফ্যাশনে ২১ জেলে নিয়ে সাগরে ট্রলার ডুবি ১জন উদ্ধার
চরফ্যাশনের কমিউনিটি হেলথ ক্লিনিকগুলোতে নেই তদারকি ॥ নতুন ভবনে আবর্জনার মধ্যেই স্বাস্থ্য সহকারী দিচ্ছে করোনার ভ্যাকসিন চরফ্যাশনের কমিউনিটি হেলথ ক্লিনিকগুলোতে নেই তদারকি ॥ নতুন ভবনে আবর্জনার মধ্যেই স্বাস্থ্য সহকারী দিচ্ছে করোনার ভ্যাকসিন
মনপুরায় ঘূর্ণীঝড়ে কেড়ে নিল শত শত কৃষকের স্বপ্ন মনপুরায় ঘূর্ণীঝড়ে কেড়ে নিল শত শত কৃষকের স্বপ্ন
নৌযান বন্ধ, সারা দেশের সাথে বিচ্ছিন্ন মনপুরা উপকূল নৌযান বন্ধ, সারা দেশের সাথে বিচ্ছিন্ন মনপুরা উপকূল
তজুমদ্দিনে হতদরিদ্রদের মাঝে ঢেউটিন, নলকূপ ও গৃহনির্মাণ অর্থ বিতরন করেন এমপি শাওন তজুমদ্দিনে হতদরিদ্রদের মাঝে ঢেউটিন, নলকূপ ও গৃহনির্মাণ অর্থ বিতরন করেন এমপি শাওন
ভোলায় সরকারের উন্নয়ন ভাবনা নিয়ে মহিলা সমাবেশ ভোলায় সরকারের উন্নয়ন ভাবনা নিয়ে মহিলা সমাবেশ
লালমোহনে পূর্বশত্রুতার জেরধরে ২জনকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ লালমোহনে পূর্বশত্রুতার জেরধরে ২জনকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ
লালমোহনে কৃষকের মাঝে এসিআই মটরসের পক্ষ থেকে কৃষি যন্ত্র বিতরণ লালমোহনে কৃষকের মাঝে এসিআই মটরসের পক্ষ থেকে কৃষি যন্ত্র বিতরণ
ভোলার রাজাপুরে আদালতের রায় অমান্য করে ঘর নির্মান, বাড়ি দখল, গাছ-মাছ লুট ভোলার রাজাপুরে আদালতের রায় অমান্য করে ঘর নির্মান, বাড়ি দখল, গাছ-মাছ লুট
ভোলা সমিতির উদ্যোগে ১৭ জুটির বর্ণাঢ্য বিবাহ অনুষ্ঠান ভোলা সমিতির উদ্যোগে ১৭ জুটির বর্ণাঢ্য বিবাহ অনুষ্ঠান

বিশেষ সাক্ষাৎকারে নবাগত পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম “ভোলার প্রধান সমস্যা মাদক ও ট্রাফিকসহ বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সহযোগিতা করুন”
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)